ট্রাম্প ও বাইডেন দু’জনই বুড়ো, কাউকে পছন্দ না ভোটারদের

ট্রাম্প ও বাইডেন দু’জনই বুড়ো, কাউকে পছন্দ না ভোটারদের

আন্তর্জাতিক স্লাইড

সামনের বছরই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। আসন্ন নির্বাচন ঘিরে বেশ সরব ডেমোক্রেটিক দলের জো বাইডেন (৮০) এবং রিপাবলিকান পার্টির ডোনাল্ট ট্রাম্প (৭৭)। দলের পক্ষ থেকেও মাঝে মধ্যেই চলে নানা প্রচারণা ও প্রতিশ্রুতির জোয়ার। তবে অধিকাংশ ভোটারই দু’জনকে দেশের ভবিষ্যৎ প্রেসিডেন্ট হিসাবে আর দেখতে চান না। বয়সই এখন যেন তাদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে।

জনপ্রিয় দুই নেতাই পেয়ে বসেছেন ‘বুড়ো’র তকমা। শতাংশের হিসাবে ‘না’ এর পাল্লাভারি বাইডেনের দিকে। ৭২ শতাংশ মার্কিনি বাইডেনকে আর প্রেসিডেন্ট হিসাবে দেখতে চান না। অপরদিকে ৫৯ শতাংশ জনগণ নির্বাচনের জন্য অযোগ্য মনে করেন ডোনাল্ট ট্রাম্পকে। ডেইলি মেইল।

জরিপে মাত্র ১২ শতাংশ মার্কিনি বলেছেন যে আগামী বছর প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দুজনই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার জন্য যথেষ্ট সুস্থ। জরিপকৃতদের মধ্যে মাত্র ৭ শতাংশ অনুভব করেছেন যে, বাইডেন এবং ট্রাম্প উভয়েরই রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করার জন্য মানসিক এবং শারীরিকভাবে সুস্থ। মানসিক এবং শারীরিক সুস্থতার দিক থেকে বাইডেনের চেয়ে ট্রাম্পকেই মার্কিনিরা অগ্রাধিকার দিচ্ছেন। মাত্র ১৬ শতাংশ মনে করেন যে বাইডেন প্রধান নির্বাহী হিসাবে আরও চার বছরের জন্য শারীরিকভাবে যথেষ্ট সুস্থ। তবে ৪৩ শতাংশ বলেছেন ট্রাম্প যথেষ্ট সুস্থ এবং যোগ্য।

গত মাসে, একটি পৃথক সিবিএস/ইউগভ জরিপে ৭৭ শতাংশ আমেরিকান মনে করেন যে বাইডেন দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ার জন্য খুব বেশি বয়সী। সিবিএস/ইউগভ জরিপ বলছে ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৫০ শতাংশ থেকে ৪৯ শতাংশ ফলাফলে মাত্র এক পয়েন্টে বাইডেনকে পরাজিত করবেন। এ প্রসঙ্গে ডোনাল্ট ট্রাম্প গত সপ্তাহে সাবেক ফক্স নিউজ সঞ্চলক মেগিন কেলিকে বলেছিলেন, বাইডেন ‘খুব বেশি বয়সী’ নন, তবে ‘সাধারণভাবে অযোগ্য’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *